দিয়ার সঙ্গে চুক্তি ও ইউরোপ ভ্রমণ

Nu Camp.jpg 4দিয়ার সঙ্গে আমার দুইটি লিখিত চুক্তি আছে।

এক. দেশের ভেতর যে কোন ট্যুরের দায়-দায়িত্ব-খাওয়া-পরা-প্লান-প্রোগ্রাম-বিপদ-আপদ-টাকা-পয়সা-টেনশনসহ যাবতীয় জিনিসের দায়ভার আমার। দুই. ২০১৫ সালের মধ্যে পুরো বাংলাদেশ তাকে ঘুরিয়ে দেখাতে হবে।

…এই চুক্তি মোতাবেক দেশের ভেতর সকল ভ্রমনের টেনশন করতে করতে আমার সামনের চুলে আরো কিছু পাক ধরেছে। এবং আশার কথা হলো দেশের চার ভাগের মধ্যে উত্তর আর পূর্ব ভাগ ইতিমধ্যে কাভার হয়ে গেছে।

চুক্তির কাউন্টার পার্ট হিসেবে দেশের বাইরের যে কোন ট্যুরের দায়-দায়িত্ব-খাওয়া-পরা-প্লান-প্রোগ্রাম-বিপদ-আপদ-টাকা-পয়সা-টেনশনসহ যাবতীয় জিনিসের দায়ভার তার। আমি সেখানে গায়ে হাওয়া লাগিয়ে ঘুরে বেড়াবো, কোন টেনশন নেবো না। এমনকি কোন কারনে আমি হারায়া গেলেও সেটা তার টেনশন, আমার না।

তো এমনই একটা গায়ে হাওয়া লাগানো ২৩ দিনের ট্যুরে রওনা হচ্ছি সোমবার সকালে। প্যারিস হয়ে পর্তুগাল দিয়ে মেডিটোরিয়ান কোস্টলাইন বরাবর পূর্ব দিকে আগাবো। রাস্তাঘাট ক্লিয়ার করতে দিয়া এক সপ্তাহ আগেই রওনা হয়ে গেছে। সে জানিয়েছে গল এয়ারপোর্ট ইতিমধ্যেই লাল গালিচা বসে গেছে। এখন চলছে সিকিউরিটি চেকিং।

যদিও মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্সে যাচ্ছি না তবুও সবাই দোয়া রাখবেন। আর সেই রকম কোন ঘটনা যদি ঘটেই যায় তবে আর কি! আউট অব ফেসবুক আউট অব মাইন্ড করে ভুলে গিয়ে দোষ ত্রুটি নিজ গুনে ক্ষমা করে দিয়েন। আর স্ট্যার্ন্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংকে আমার ৫ লাখ টাকার একটা লোন আছে সেটা কেউ শোধ করে দিয়েন। আর প্রাইম ব্যাংকে ৮ কোটি টাকার যে এফডিআরটা আছে সেটা নিজেরা ভাগাভাগি করে নিতে পারেন। উত্তরা-ধানমন্ডি আর গুলশানের ফ্ল্যাটটাগুলো বিক্রি না করে গরীব দুঃখীদের মাঝে বিলিয়ে দিয়েন।

কিশোর আলোর ডিসেম্বর সংখ্যা প্রেসে পাঠিয়ে দিয়েছি ইতিমধ্যে। ডিসেম্বরের শুরুতে যখন বাজারে আসবে তখন কিনতে ভুলবেন না।

Nu Campআর হা, ৭ ডিসেম্বর বার্সেলোনার ক্যাম্প ন্যুতে বার্সেলোনা বনাম এসপানিওল এর খেলা টিভিতে দেখতে ভুলবেন না। স্টেডিয়ামে আমি একটা বাংলাদেশের পতাকা নিয়ে যাচ্ছি। উড়ায়ে হাত ব্যথা করে ফেলবো। টিভিঅলারা এমন সুন্দর পতাকা না দেখায়া যাবে কই।

জগতের সকল প্রানী সুখী হোক।
পোস্টটি দিয়েছিলাম নভেম্বর ২৩, ২০১৪।

Advertisements